Templates by BIGtheme NET
Home / বর্তমান পরিপ্রেক্ষিত / অন্তরালে’র মোড়ক উন্মোচন ।। এখানে আমাকে মানাচ্ছে নাগো…

অন্তরালে’র মোড়ক উন্মোচন ।। এখানে আমাকে মানাচ্ছে নাগো…

মেহেরপুর নিউজ,০৫ ডিসেম্বর:
‘এখানে আমাকে মানাচ্ছে না নাগো
এই সব চাকচিক্য জাঁকজমক
লাল নীল নিয়ন বাতির আলো
চোখে লাগে ধাঁধাঁ , লাগে না ভালো
এখানে আমাকে মানাচ্ছে নাগো ’।।
মাগো …
মাকে নিয়ে লেখা এমডি মনিরের কবিতাটি যখন মাইকে বাঁজছিল বুকের মধ্যেখানে মায়ের প্রতি মাটির প্রতি ভাললাগা ভালোবাসা এক অনুভব বোধ হচ্ছিল। পুরো অনুষ্ঠানে আগুন্তক সকলের চোখে মুখে এক মায়াবি ভাললাগা ভালোবাস অনুভব হচ্ছিল।
এরকম প্রবাসীদের নিয়ে কবি এমডি মনিরের লেখা…
‘নাড়ী ছেঁড়া টান বুকের সোনা জান
ছোট্র সেই খোকা।
ঊড় হয়ে আজ গেল খুঁজতে কাজ
নিজেকে দিল ধোঁকা।
মায়ের আঁচল বাবার ফসল
দেশের মাটি ছাড়ি খোকা গেল দুরে কাটে মাচি খুড়ে
টাকা দরকার কাড়িকাড়ি’।
কবিতা খানী প্রবাসী ভাইদের কথা স্মরণ করে দেয়।
এ ধরনের ৮০টি কবিতা নিয়ে তার কবিতার বই অন্তরালে। এই অন্তরালে’র বইটির আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হলো সোমবার বিকালে মেহেরপুরের মুজিবগর উপজেলার মহাজনপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে।
মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার কোমরপুরে এমডি মনিরের প্রথম একক কাব্যগ্রন্থ অন্তরালে’র মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মহাজনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমাম হোসেন মিলুর সভাপতিত্বে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্য দেন মেহেরপুর সরকারী কলেজের সহযোগী অধ্যাপক, লেখকও লোক গবেষক আবদুল্লাহ আল আমিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কথা সাহিত্যিক শ্বাশত নিপ্পন, যাদুখালী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান টিপু, শিক্ষক শাহাজান আলী, এ্যাড. সাহেদ আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন অন্তরালে’র লেখক এম ডি মনির।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবদুল্লাহ আল আমিন বলেন, মহাজনপুরের এই অঞ্চল লোকজ সাহিত্যকর্মের এক অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। চরের সাথে চৈতণ্যের, ভাবের সাথে ভাষার সাথে যুদ্ধের নাম হচ্ছে কবিতা। কুরুক্ষেত্রে যোদ্ধারা যেমন অন্যায় অসত্যের বিরদ্ধে লড়াই করেন। কবিরাও অন্যায় ও অসত্যোর বিরুদ্ধে লড়াই করে। কবির ভাবনায় কবি যা লিখেন তাই সত্য। এমডি মনির সেই লড়াকু একজন কবি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শ্বাশত নিপ্পন বলেন, যারা টাকার গরমে বই বের করে তাদের থেকে কবি এমডি মনির একটু আলাদা। তার কবিতায় ভালোবাসা, মানবিকতা, মাটি নিয়ে লেখা হয়েছে। আমাকে তার এই কবিতাগুলো আপ্লুত করেছে।
ফারহানা রহমানের প্রকাশনায় কুষ্টিয়ার প্রাপ্তী প্রকাশনী অন্তারালে বইটি প্রকাশনা করে। আগামী জাতীয় বইমেলায় আনুষ্ঠানিক ভাবে বইটির প্রকাশনা উৎসব করা বলে জানা গেছে।

এমডি মনিরে সংক্ষিপ্ত জীবনী:
মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার মহাজনপুর ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের জামারুল ইসলাম ও মেহেজান খাতুন দম্পতির সন্তান। তিনি ভাইয়ের মধ্যে তিনি মেজ ছেলে। নিম্মবিত্ত পরিবারে আর্থিক অস্বচ্ছলতার মধ্যে দিয়ে বেড়ে উঠে কবির জীবন। অস্বচ্ছলতার সাথে যুদ্ধ করে এইচএসসি পর্যন্ত লেখা পড়া করে জীবন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েন এমডি মনির। জীবনে চলার পথে নানা বাঁধা, না জঞ্জাল তার মনকে কুঁড়ে খায়। সেই প্রেরনা থেকে কবির লেখার প্রয়াস তৈরি হয়।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.