Templates by BIGtheme NET
Home / অতিথী কলাম / অবিসংবাদিত নেতা আহম্মদ আলী ।। আজ তার ১৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী

অবিসংবাদিত নেতা আহম্মদ আলী ।। আজ তার ১৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী

9মাসুদ অরুণ:
আহম্মদ আলী। এক অবিসংবাদিত আপাদমস্তক রাজনীতিকের নাম। যিনি ক্ষেতে কৃষাণ, কলে মজুর- জোট বাঁধো, তৈরী হও, এই শে­াগান নিয়ে রাজনীতি শুরু করে শেষ অবধি সাধারণ মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় লড়ে গেছেন। মেহনতি মানুষের পক্ষে বাম রাজনীতি দিয়ে লড়াই সংগ্রাম শুর“ হলেও পরে তিনি একই লক্ষ্যে মওলানা ভাষানীর রাজনীতিতে যোগ দেন। ভাষানীর রাজনৈতিক ঘনিষ্ট সহকর্মী হিসাবে তিনি বৃহত্তর কুষ্টিয়ার সাধারণ সম্পাদক হয়ে মেহেরপুর সহ এতদঞ্চলের রাজনীতিতে প্রবেশ করেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবস্থায় তিনি ছাত্র ইউনিয়নের যুগ্ম আহবায়ক হিসাবে ৫২ ভাষা আন্দোলনে ভাষার দাবীতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। ৬৯ সালে আয়ুব বিরোধী গণআন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ার একপর্যায়ে গ্রেপ্তার হন। প্রায় এক বছর ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে কারাবরণ করেন। এভাবেই রাজনীতিতে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। ৭০ সালের ঐতিহাসিক নির্বাচনে তিনি প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য পদে মনোনীতি হন। পরে- ভোটের বাক্সে লাথি মারো, গণঅধিকার কায়েম করো সেই শে­াগান প্রতিষ্ঠিত করতে তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। ৭১ এ অসহযোগ ও প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলে তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। মুক্তিযুদ্ধে ছাত্র-যুবকদের উদ্বুদ্ধকরণ ও বিশেষ প্রশিক্ষণ দিতে ভারতে যান।
স্বাধীনতা পরবর্তী ৭৮ সালে তিনি মেহেরপুর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হন। ৮০ সালে বিএনপির খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হয়ে জিয়াউর রহমানের ঘনিষ্ট সহযোদ্ধা হিসাবে এতদঞ্চলে বিএনপির রাজনীতিকে এগিয়ে নিতে শক্তিশালী ভূমিকা রাখেন। ৭৯ ও ৯৬ সাল সহ ৩ বার তিনি বিএনপির সংসদ সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হন। মেহেরপুর শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিষ্ঠা সভাপতি ছিলেন এবং ৯৬ সালে ব্যাবসায়ীদের কেন্দ্রীয় সংগঠন এফবিসিসিআই-এর পরিচালক হিসাবে নির্বাচিত হন। তিনি দীর্ঘ ১৯ বছর মেহেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে জেলায় জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসে মানুষের কাছে প্রিয় নেতা হয়ে ওঠেন। তাঁর রাজনৈতিক জীবন ছিলো অনেক বর্ণাঢ্য। কিন্তু ব্যাক্তি জীবনে তিনি ছিলেন অতি সাধারণ, সদালাপী ও বিনয়ী। এমন মহান নেতার মৃত্যুতে রাস্ট্রীয় সম্মান জানানো হয় এবং সকল শ্রেণীপেশার মানুষের বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় মেহেরপুরে ৩ দিনের শোক কর্মসূচী পালন করা হয়।
কর্মসূচী:
আজ ১৩ ফেব্রুয়ারী তাঁর ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মেহেরপুর জেলা বিএনপি দুই দিন ব্যাপী নানা কর্মসূচী গ্রহন করেছে। ১৩ ফেব্রুয়ারী শনিবার পৌর টাউন হলে আলোচনা সভা, মৌন শোক পদযাত্রা, মরহুমের কবর জিয়ারত সহ বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। তাঁর মৃত্যুবার্ষিকীতে জেলার সর্বদলীয় নেতৃবৃন্দকে এবং জেলার বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।
লেখক: সাবেক এমপি ও আহম্মদ আলীর জৌষ্ঠ পুত্র

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.