Templates by BIGtheme NET
Home / ধর্ম / আঞ্চলিক ইজতেমায় লাখো মুসল্লীর জুম’আর নামায আদায়

আঞ্চলিক ইজতেমায় লাখো মুসল্লীর জুম’আর নামায আদায়

1মেহেরপুর নিউজ, ২৬ ফেব্রুয়ায়ী:
লাখো মুসল্লীর জিকিরে কম্পিত হলো মেহেরপুর আঞ্চলিক ইজতেমা প্রাঙ্গন। শুক্রবার শেষ দিনে মেহেরপুরের আঞ্চলিক ইজতেময় জুম’আর নামায আদায় করেন প্রায় লাখ খানেক মুসল্লী। জুম’আর নামায আদায় করার লক্ষ্যে মেহেরপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মুসল্লী জড়ো হতে থাকে মেহেরপুর সরকারী কলেজ মাঠের ইজতেমা প্রাঙ্গনে। ইজতেমার নির্দিষ্ট স্থানসহ আশেপাশের যেখানে ফাঁকা ছিল সেখানে দাড়িয়েই মুসল্লীদের নামায আদায় করতে দেখা গেছে। যেন কোথাও তিল ধারণের ঠাঁয় নাই। আশেপাশের বিভিন্ন বাড়িতে মহিলারাও এই জুম’আর নামায আদায় করেছেন। ইজতেমায় জুম’আর নামায আদায় করায় শহরের বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লীর সংখ্যা ছিল হাতে গোনা।

শুক্রবার বাদ মাগরিব আখেরী মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে তিনদিন ব্যাপী তাবলীগ জামায়য়াতের এই আঞ্চলিক ইজতেমা শেষ হবে।

বুধবার সকাল থেকে শুরু হয় তিনি দিনের আঞ্চলিক ইজতেমা। তার আগে থেকেই ইজতেমা প্রাঙ্গনে আসতে শুরু করে মুসল্লীররা। শুক্রবার লাখো মুসল্লীর জমায়েতে জুম’আর নামায আদায় ইহজীবন ও পরকালের জন্য একটি বড় সৌভাগৌর প্রাপ্তি বলে উল্লেখ করেন মুসল্লীরা। সে কারনে এখানে নামায আদায় করার জন্য ছুটে এসেছেন বিভিন্ন এলাকার মুসল্লীরা।

মেহেরপুর শহরের হোটেল বাজার এলাকার মিনারুল ইসলাম বলেন, এতলোকের সাথে নামায আদায় করতে পেরে নিজেক খুবই ভাগ্যবান মনে হচ্ছে। খুবই ভালো লাগছে।

সদর উপজেলার খোকসা গ্রাম থেকে আসা রাকিবুল ইসলাম বলেন, বিশ্ব ইজতেমায় যাওয়ার সৌভাগ্য হয়নি তার। মেহেরপুরে ইজতেমা হচ্ছে জানতে পেরে ১ম দিন থেকেই তিনি সেখানে অবস্থান করছেন । তিনি বলেন, তিন দিনের মধ্যে শুক্রবার সকাল থেকেই বেশি পরিমান মুসল্লী ইজতেমা প্রাঙ্গনে জমা হতে থাকে। তিনি ধারণা করে বলেন, প্রায় লক্ষ খানেক মুসল্লী সেখানে জড়ো হয়েছেন জুম’আর নামায আদায় করার জন্য।

ইজতেমার একজন জিম্মাদার নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ত্রিশ হাজার মুসল্লীর থাকার জন্য প্যান্ডেল করা হয়েছিল। কিন্তু তার তিনগুন মুসল্লী জুম’আর নামায আদায় করার জন্য ইজতেমা প্রাঙ্গনে এসেছেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.