Templates by BIGtheme NET
Home / অন্যান্য / আমেরিকায় নতুন এনজিও ইডিপি’র যাত্রা শুরু ।। সংগঠনটির লক্ষ্য, উদ্দেশ্যর প্রশংসা করলেন অতিথিরা

আমেরিকায় নতুন এনজিও ইডিপি’র যাত্রা শুরু ।। সংগঠনটির লক্ষ্য, উদ্দেশ্যর প্রশংসা করলেন অতিথিরা

EDP-16-04-15-Pic-1নিউইয়ক থেকে, ১৬ এপ্রিল:

আমেরিকার নিউইয়র্কে সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী অলাভজনক এনজিও হিসাবে ইমপাওয়ারিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (ইডিপি) বা আত্বশক্তি উন্নয়ন প্রকল্প তাঁর আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করলো। সম্প্রতি জ্যাকসন হাইটসের ৩৫-২৭, ৮৮ স্ট্রিটের একটি ভবনে সংগঠনটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনেক গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। মূলত: বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণমূলক কর্মসূচী গ্রহন করে হতাশাগ্রস্থদের মাঝে আত্বশক্তি উন্নয়নের মাধ্যমে অদক্ষ জনশক্তিকে দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত করায় হবে এ সংগঠনটির মূল্য লক্ষ্য উদ্দেশ্য ও কাজ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন (ইপিডির) নির্বাহী পরিচালক ফ্যাশান ডিজাইনার মেহেরপুরের মেয়ে আম্বিয়া EDP-16-04-15-Pic-2বেগম অন্তরা। এই সময় ইডিপির পরিচালক নাইজার এফ নুর এবং জেসন রবার্ট গ্রেভস সংগঠনটির অগ্রযাত্রায় সকলের সহযোগীতা কামনা এবং তাঁদের সমর্থন ও শুভকামনা প্রকাশ করে বক্তব্য দেন।
মধান্থভোজ শেষে অনুষ্ঠানে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে আরও বক্তব্য দেন, বিশিষ্ট অভিনেতা আহমেদ শরীফ, সমাজ সেবক ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব আলহাজ্ব সোলাইমান ভুঁইয়া, সিপিএ সারোয়ার চৌধুরী, কুষ্টিয়া জেলা সমিতির যুগ্ম সম্পাদক সমাজে সেবক এমডি আসাদুজ্জামান আসাদ, এনজিও গবেষক আনিসুর রহমান, ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস সভাপতি শাহ শহিদুল হক, শিশু সাহিত্যিক ও বাপস নিউজ এর চেয়ারম্যান হাসানুর রহমান, আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ (অরজিন) সভাপতি হাকিকুল ইসলাম খোকন, আমেরিকান-বাংলাদেশ পুলিশ ক্লাবের সভাপতি ও লেখক খাঁন শওকত, আমেরিকার নিউজার্সির কমিশন অথরিটি সমাজসেবক দেওয়ান বজলু চৌধুরী, নির্বাহী সম্পাদক সাপ্তাহিক আজকাল সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, সাপ্তাহিক আজকাল পত্রিকার সাংবাদিক আনিসুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সাংস্কৃতিক সংগঠক মিনা ইসলাম।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রবাসে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে যুক্ত ব্যাক্তিত্ব কল্পনা বেগম, রোকসানা বেগম, হেলেন পারভীন, মীর হোসোইন, বাবু, ডলি শওকত, ফারহানা চৌধুরী, রওশন চৌধুরী এবং সংগীত শিল্পী ও কম্পোজার অনুপ কুমার।
অনুষ্ঠানে ইডিপির নির্বাহী পরিচালক তাঁর বক্তব্যে বলেন, এটা তাঁর শিশুকালের লালিত স্বপ্ন ছিলো। বঞ্চিত অবহেলিত অদক্ষ মানুষের জন্য নিজের মেধা, সততা ও মননকে উৎসর্গ করে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা তাঁর দীর্ঘদিনের। তাই ছোটবেলা থেকে মানবিক কাজে অংশ নেওয়া, গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিনা খরচে লেখাপড়া শেখানো ছিলো তাঁর কাজ। ২০০৮ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, জীবনে যদি কখনো কিছু রোজগার করি তাহলে তাঁর সিংহভাগ অর্থ অবহেলিত মানুষের জন্য ব্যায় করবেন।
তিনি বলেন, সেই লক্ষ্যে এই প্রতিষ্ঠানটি ভাষা, কম্পিউটার, টেইলারিং, ফ্যাশান ডিজাইনিং, ক্ষুদ্র ব্যবসা, রন্ধন প্রণালী, রেষ্টুরেন্ট ক্যাটারিং, সাংস্কৃতিক সহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মশালামূলক কাজ করবে। ৫০ ডলার ভর্তি ফি দিয়ে যে কোন ব্যাক্তি এই প্রতিষ্টান থেকে প্রশিক্ষণ শেষে তাঁকে আনুষ্টানিকভাবে সনদপত্র বা লাইসেন্স প্রদান করা হবে। আ¤ি^য়া বেগম অন্তরা বলেন, তাঁর এই কর্মকান্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে মধুর সম্পর্ক ও দক্ষ জনশক্তি উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। কেননা- প্রতিষ্ঠানটি হস্তশিল্পে এবং কারিগরি ক্ষেত্রে বিশেষ প্রশিক্ষনের মাধ্যমে অদক্ষ নারী পুরুষ, তরুণ তরুণীদের দক্ষ করে গড়ে তুলে আত্বনির্ভরশীল সমাজ গঠনে সর্বাত্বক প্রচেষ্টা চালাবে।
এ সময় উপস্থিত অতিথিরা তাঁদের প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করতে গিয়ে সকলেই বলেন, এই সংগঠনটি এক ব্যাতিক্রমী দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এবং সমাজ বদলের অঙ্গীকার করে যাত্রা শুরু করেছে। সংগঠনটির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সকলকে আকৃষ্ট করেছে উল্লেখ করে ভূয়সী প্রশংসা করেন। সকলেই সংগঠনটির প্রতিষ্ঠায় এবং আগামীর পথযাত্রায় সহযোগীতার হাত বাড়াবেন বলে ঘোষণা দেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful