Templates by BIGtheme NET
Home / আইন-আদালত / গাংনীতে অপহরণের ৫ মাস পর গলিত লাশ উদ্ধার

গাংনীতে অপহরণের ৫ মাস পর গলিত লাশ উদ্ধার

মেহেরপুর নিউজ, ১৯ জানুয়ারি:
মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহেবনগর গ্রামের অপহরণের ৫ মাস পর অপহৃত গৃহবধু নারগিস খাতুনের (৪৫) গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে সাহেবনগন গ্রামের আবুল বাশারের টয়লেটের ট্যাংক থেকে তার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। নারগিস খাতুন সাহেবনগর গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফের স্ত্রী।
গাংনী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিশ্বজিৎ সাহা জানান, ২০১৮ সালের ৫ আগষ্ট রবিবার থেকে নারগিস খাতুন নিখোঁজ হন। পরে তার মেয়ে তাসলিমা খাতুন বাদি হয়ে অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে গাংনী থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে। মামলা নং-২৪, তাং ১৮/০৯/১৮ ইং। এ মামলায় সন্দেহভাজন আবুল বাশার ও তার এক সহযোগীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা এখনও মেহেরপুর জেলা কারাগারে রয়েছে।
বিশ্বজিৎ সাহা আরো জানান, অপহরণ মামলার সন্দেহ ভাজন আসামী সাহেবনগর গ্রামের জামিরুল ইসলামের ছেলে ফরজ আলীকে গত শুক্রবার বিকালে সাহেবনগর গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ফরজ আলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে লাশের সন্ধান দেয়। তার দেওয়া তথ্য অনুয়ায়ী অভিযান চালিয়ে অপর আসামি বাশারের টয়লেট ট্যাংকের মধ্যে থেকে নারগিসের গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।
গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) মো: সাজেদুল ইসলাম জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এ হত্যার কান্ডের ঘটনা ঘটেছে। দির্ঘদিন ধরে আমরা অপহৃত নারগিসের সন্ধানে কাজ করেছি। অবশেষে তার লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.