Templates by BIGtheme NET
Home / কৃষি সমাচার / গাংনীতে কেমিক্যাল মেশানো ৭৬ মন আম বিনষ্ট

গাংনীতে কেমিক্যাল মেশানো ৭৬ মন আম বিনষ্ট

মেহেরপুর নিউজ, ০৯ মে:
মেহেরপুরের গাংনীতে কেমিক্যাল মেশানো ৭৬ মন (১০২ ক্যারেট) অপরিপক্ক আম জব্দ করে বিনষ্ট করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
সোমবার রাত ১১ টার দিকে গাংনী উপজেলা পরিষদ চত্বরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এস এম জামাল আহমেদ ও গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেনের উপস্থিতিতে আম গুলো বিনষ্ট করা হয়।
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, চিৎলা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য শফিউর রহমান টমার ছেলে হিরোন আলী সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য কারবাইড সহ অন্যান্য কেমিক্যাল স্প্রে করে অপরিপক্ক আম বাজারজাত করনের জন্য ট্রাকে করে বগুড়া জেলায় নিচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে বাঁশবাড়িয়া-চিৎলা সড়ক থেকে ট্রাকটি আটক করা হয়। আটককৃত ট্রাকে ১০২ ক্যারেটে ৭৬ মন অপরিপক্ক আম রয়েছে যার আনুমানিক বাজার মূল্যে লক্ষাধিক টাকা। পরে অপুষ্ট আম ভ্রাম্যমান আদালতে নেয়া হলে আদালত বিনষ্ট করার আদেশ দিলে সে গুলো বিনষ্ট করা হয়।
ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট এস এম জামাল আহমেদ জানান, গত ৪ মে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসন ও কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত নিরাপদ আম বাজারজাতকরণ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় মেহেরপুরের ভৌগলিক আবহাওয়া তুলনা করে গোপালভোগ আম ১৫ মে, হিমসাগর আম ২০ মে, ল্যাংড়া আম ৩০ মে থেকে বাজারজাত করণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সিদ্ধান্ত আম ব্যবসায়ী ও চাষিদের এ নির্দেশনা মেনে চলার আহবান জানান জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ ও পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান। সে নির্দেশনা না মানায় অসাধু ব্যবসায়ীর জব্দকৃত আম গুলো বিনষ্ট করা হয়।
জব্দ করা ট্রাককের চালক সোহাগ হোসেন জানান, চিৎলা এলাকা থেকে আমগুলো ট্রাকে লোড দেয়া হয়েছে। আম গুলো বগুড়া শহরের ফল পট্টিতে নিয়ে যাওয়ার চুক্তি হয়েছিল।
তবে এ ঘটনার পর থেকে আম ব্যবসায়ী হিরণ আলী আত্মগোপনে রয়েছেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.