Templates by BIGtheme NET
Home / অন্যান্য / গাংনীর ঐতিহ্যবাহি মরা নদীতে মাছের অভয় আশ্রম ।। নতুন একটি ইতিহাসের উন্মোচন

গাংনীর ঐতিহ্যবাহি মরা নদীতে মাছের অভয় আশ্রম ।। নতুন একটি ইতিহাসের উন্মোচন

1মেহেরপুর নিউজ,১৩ আগষ্ট:
৫ একর নদী নিয়ে মাছের অভয় আশ্রম সৃষ্টির মধ্যে দিয়ে মেহেরপুরে দেশী প্রজাতির মাছ উৎপাদনের এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন জেলা প্রশাসন ও মৎস বিভাগ। এর ফলে দেশী প্রজাতির মাছের উৎপাদনে একটি ইতিহাস সৃষ্টি হতে চলেছে মেহেরপুরে। এলাকার মানুষ আবারো ফিরে পাবে দেশী (কাট মাছের) প্রজাতির মাছের স্বাদ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার চরগোয়ালগ্রামের মরা নদীর ৫ একর জমিতে মাছের অভয় আশ্রমের উদ্বোধন করা হয়। মেহেরপুর জেলা প্রশাসক মো: শফিকুল ইসলাম সেখানে দেশী প্রজাতি মাছের মন খানেক পোনা অবমুক্ত করে অভয় আশ্রমের উদ্বোধন করেণ। এ সময় জেলা প্রশাসক পত্মী অ্যাড. লতিফা খানম চৌধুরী, গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল আমিন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা শেখ মেছবাহুল হক, মেহেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানসহ মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা ও স্থানীয় ব্যাক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
10এ সময় মেহেরপুর জেলা প্রশাসক মো: শফিকুল ইসলাম মেহেরপুর নিউজকে বলেন, দেশী প্রজাতি মাছ উৎপাদনের অভয় আশ্রমের কোনো বিকল্প নাই। সেই লক্ষ্যে জেলা মৎস্য বিভাগ ও উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় চরগোয়াল গ্রামের মরা নদীতে মাছের অভয় আশ্রমের পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছে। যা মেহেরপুরের জন্য একটি ইতিহাস হয়ে থাকবে । এখানো কোনো অসাধু শিকারী বা ব্যবসায়ী মাছ ধরতে পারবে না।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা শেখ মেছবাহুল হক মেহেরপুর নিউজকে বলেন, নদী নালাতে পানি শুকিয়ে যাওয়ার কারনে মেহেরপুরে দেশী প্রজাতির মাছ পাওয়া যায় না। ঐতিহ্যবাহি মরা নদীর যার আয়তন প্রায় ৬ কিলোমিটার। সেখান থেকে বাছাই করে ৫একর জমি নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে মাছের অভয় আশ্রম তৈরি করা হয়েছে। আজ তার কার্যক্রম শুরু করা হলো। তিনি আরো বলেন, এটা সহ জেলার সকল উপজেলাই ৪টি অভয় আশ্রম করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।যা দ্রুত সম্পন্ন করা হবে। এর ফলে মেহেরপুরের মানুষ আবারও দেশী প্রজাতির মাছ( কাট মাছের) আসল স্বাদ পিরে পাবে বলে তিনি জানান।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.