Templates by BIGtheme NET
Home / অন্যান্য / গাংনীর প্রেমিক শিক্ষকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

গাংনীর প্রেমিক শিক্ষকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

OLYMPUS DIGITAL CAMERAমেহেরপুর নিউজ,১২ মে:
মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কল্যানপুরে প্রেমিক শিক্ষকের প্রতারনার শ্বীকার হয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করছেন স্কুল ছাত্রী প্রেমিকা চামেলী নাতুন। সোমবার বিকাল ৪ টা থেকে শিক্ষক বেলাল হোসেনের কল্যানপুরের বাড়িতে অনশন করছেন চামেলী খাতুন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক বেলাল হোসেন কে স্কুল থেকে বহিস্কার করেছে প্রধান শিক্ষক। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি।
হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী চামেলী খাতুন জানান, গত তিন বছর যাবৎ একই স্কুলের সহকারী শিক্ষক বেলাল হোসেন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। এখন বিয়েতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছে। যে কারনে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক শিক্ষক বেলালের বাড়িতে অনশন পালন করছি। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত শিক্ষক বেলাল হোসেন। শিক্ষক ছাত্রীর প্রেমের রঙ্গলীলায় এলাকায় নানা সমালোচনার ঝড় বইছে। অভিভাবকেরা তাদের মেয়েকে স্কুলের পাঠাতে ভয় পাচ্ছে বলে জানান তারা। এছাড়া ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অভিভাবকেরা। শিক্ষক বেলালের প্রতারনার শ্বীকার চামেলী খাতুন আরো জানান, তাকে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে।
হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইদ্রীস আলী টুকুল জানান,অভিযুক্ত শিক্ষক কে বহিস্কার করা হয়েছে। শিক্ষক কাজি কামরুজ্জামান কে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। গাংনী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান,অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি হওয়া দরকার। এ ব্যপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। অভিযুক্ত শিক্ষক বেলাল হোসেনের বাড়িতে এ ব্যপারে কথা বলতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নী। কয়েকবার মোবাইল ফোনে কল তিনি রিসিভ করেননী।
তদন্ত কমিটির প্রধান কাজি কামরুজ্জামান জানান,তদন্ত চলছে। একহাতে তালি বাঁজেনা নিশ্চিয় কিছু একটা ঘটেছে। তদন্ত শেষে প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।
চামেলীর পরিবার দাবি করে বলেছেন অভিযুক্ত শিক্ষক বেলাল প্রভাবশালী হওয়ায় তদন্ত কমিটি কে প্রভাবিত করতে পারে। গাংনী থানার ওসি আকরাম হোসেন জানান,অভিযুক্ত শিক্ষক বেলালের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসব শিক্ষক জাতির জন্য কলংক। হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শফিকুল ইসলাম এর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে কল করলে বন্ধ পাওয়া যায়।
মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক মাহমুদ হোসেন জানান,ঘটনাতদন্তে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে বলা হয়েছে।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.