Templates by BIGtheme NET
Home / বিশেষ প্রতিবেদন / গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরাজীর্ণ ভবনে চলছে চিকিৎসা সেবা ।। যে কোন মূহূর্তে ঘটতে পারে ভয়াবহ দূর্ঘটনা

গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরাজীর্ণ ভবনে চলছে চিকিৎসা সেবা ।। যে কোন মূহূর্তে ঘটতে পারে ভয়াবহ দূর্ঘটনা

বিশেষ প্রতিবেদন

Hospital Picture-30মেহেরপুর নিউজ ২৪ ডট কম,০১মে:
ময়লা আবর্জনার স্তুপ আর সেই সাথে ছাদের প্লাস্টার ধ্বসে পড়া এই নিয়ে বছর তিনেক ধরে ঝুঁকির মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা চলছে গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। তবে এতো কিছুর পরও কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেন নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ । ফলে যেকোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।
সম্প্রতি সাভারে ভবন ধ্বসের ঘটনার পর থেকে এ জরাজীর্ণ ভবনে কোন রোগী চিকিৎসা নিতে আসতে চাইছেন না। থানা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা,মেহেরপুর সিভিল সার্জন ও স্বাস্থ্য প্রকৌশলী এখন পর্যন্ত এ ভবনটি কাজের উপযোগি কি না সে ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নেননি।
জানা গেছে, ১৯৬৮ সালে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনটি নির্মিত হয়। বছর চারেক আগে ভবনটির ছাদ ফেটে পানি পড়া ছাড়াও ছাদের প্লাস্টার খসে খসে পড়ে। ময়লা আর পানির পাইপ ফেটে দুর্গন্ধ ছড়ায়। এ অবস্থায় নতুন ভবন নির্মানের উদ্যোগ নেয়া হলেও বছর তিনেক আগ থেকেই নির্মান কাজটি বন্ধ হয়ে যায়। নতুন ভবন নির্মান শুরুর পর থেকেই ছোট খাটো মেরামতের টাকা বরাদ্ধ দেয়া বন্ধ করে দেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচ ও ডা. বিধান চন্দ্র ঘোষ জানান, সাভার ট্রাজেডির পর থেকে ভয়ে রোগি সাধারণ এখানে আর আসতে চাইছেন না। সবাইকে ভয়ে ভয়ে কাজ করতে হচ্ছে। ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষনা না করা হলেও ভবনটি যে অবস্থা তাতে কেউ শংকা মুক্ত নন। বিষয়টি মৌখিকভাবে মেহেরপুর সিভিল সার্জন ও স্বাস্থ্য প্রকৌশলীকে পত্র মারফত ভবনটির বর্তমান অবস্থা জানিয়ে তা পরীক্ষা করার জন্য চিঠি দেয়া হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় নি।
মেহেরপুর সিভিল সার্জন আব্দুস শহীদ জানান, তিনি বর্তমানে খুলনায় অবস্থান করছেন তাই মোবাইল ফোনে স্বাস্থ্য প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।
স্বাস্থ্য প্রকৌশলী মাহমুদ জানান, তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। ভবনটি যারা ব্যবহার করেন তারা সিদ্ধান্ত নেবেন ভবনটি ব্যবহার উপযোগি কিনা।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.