Templates by BIGtheme NET
Home / সারাদেশ / জয়পুরহাটে ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ হত্যা মামলার দুই আসামী বন্ধুকযদ্ধে নিহত

জয়পুরহাটে ইউপি চেয়ারম্যান আজাদ হত্যা মামলার দুই আসামী বন্ধুকযদ্ধে নিহত

Gun-fight20130521213544ডেস্ক রিপোর্ট,১৪ জুন:
জয়পুরহাট সদর উপজেলার ভাদসা ইউনিয়নের গোপালপুর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যান এ কে আজাদ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামি সন্ত্রাসী সোহেল রানা (২৫) ও মনিরুজ্জামান মনির (২৭) নিহত হয়েছেন।

সোমবার দিবাগত গভীর রাতে ভাদসা ইউনিয়নের গোপালপুল-কোচকুড়ি রাস্তার মাঝামাঝি এলাকায় এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- ওই ইউনিয়নের ছাওয়ালপাড়া গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানা ও কোচকুড়ি গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে মনিরুজ্জামান মনির। এ সময় সন্ত্রাসীদের আঘাতে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেনসহ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।

জয়পুরহাটের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) অশোক কুমার পাল জানান, সোমবার গভীর রাতে ভাদসা ইউনিয়নের নিহত নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানের বাসায় একদল সন্ত্রাসী হামলা চালাতে পারে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানার ওসির নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সংবাদ পেয়ে সন্ত্রাসীরা চারদিক থেকে পুলিশ সদস্যদের ঘেড়াও করলে দু-পক্ষের মাঝে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় সন্ত্রাসী সোহেল ও মনির ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় সন্ত্রাসীদের আঘাতে ওসি ফরিদ হোসেন সহ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।

জয়পুরহাটের এএসপি অশোক কুমার পাল আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি ও দুটি দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত,গত ৪ জুন রাতে সদর উপজেলার ভাদসা ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান এ কে আজাদসহ নয়ন নামে স্থানীয় এক যুবককে ৭/৮ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ কুপিয়ে ও গুলি করে। এতে তারা গুরুতর আহত হন। গত ১২ জুন ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চেয়ারম্যান মারা যান।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.