Templates by BIGtheme NET
Home / খেলাধুলা / নদীমাতৃক বাংলাদেশে সাঁতারুদের অপার সম্ভাবনা রয়েছে …. এমপি ফরহাদ হোসেন

নদীমাতৃক বাংলাদেশে সাঁতারুদের অপার সম্ভাবনা রয়েছে …. এমপি ফরহাদ হোসেন

111মেহেরপুর নিউজ,০৯ আগষ্ট:
মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন বলেছেন,ক্রীড়াঙ্গনে সরকার বিশেষ গুরত্ব দিয়েছে। যেকারণে ক্রিকেটে সারাবিশ্বে সুনাম বয়ে এনেছে। তারই ধারাবাহিকতায় সেরা সাঁতারু বাছাই করার প্রক্রিয়া চলছে।
ফরহাদ হোসেন বলেন, যেহতু নদীমাতৃক বাংলাদেশে সাঁতারুদের অপার সম্ভবাবনার সুযোগ হাতছানি দিচ্ছে। এখান থেকে বাছাইকৃত সেরা সাঁতারুরা বিশ্বের দরবারের বাংলাদেশের মান উজ্জল করবে ।
নদীমাতৃক বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞলে লুকিয়ে থাকা প্রতিভাবান সাঁতারু অণে¦ষন প্রতিযোগীতা ‘সেরা সাঁতারুর খোজে বাংলাদেশ’ এর মেহেরপুরে জেলার প্রতিযোগীতার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি ফরহাদ হোসেন একথা গুলো বলেন।
মঙ্গলবার সকালে মেহেরপুর পৌর গড় পুকুরে বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশন ও নৌবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে জেলা ক্রীড়া সংস্থা এ সাঁতার প্রতিযোগীতা বাস্তবায়ন করে।
111111111বাংলাদেশ নৌবাহিনীর, কমান্ডার এস এম মাহমুদুর রহমান (সি) পিএসসি, বিএন’র সভাপতিত্বে প্রতিযোগীতার উদ্বাধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মান্নাফ কবির, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব কেএম আতাউল হাকিম লাল মিয়া, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, নৌবাহিনীর লে: কমান্ডার এম নাঈমুল হক, (এস) বিএন, লে: কমান্ডারেএম নাহিদ হাসান ,(এক্স), বিএন, জেলা শিক্ষা অফিসার সুভাস চন্দ্র গোলদার। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ডিএফএ’র সহ-সভাপতি আনোয়ারুল হক শাহী, মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জিয়া উদ্দিন বিশ্বাস প্রমুখ।
সাঁতার প্রতিযোগীতায় বয়সভিত্তিক ৪টি গ্রুপে ৯০ জন প্রতিযোগী প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহণ করে। এর মধ্যে থেকে সেরা ২০ জন বিভাগীয় সাঁতার প্রতিযোগীতা অংশগ্রহণ করার সুযোগ পাবে।
সভাপতির বক্তব্যে কমান্ডার এস এম মাহমুদুর রহমান (সি) পিএসসি, বিএন বলেন, ‘নদীমাতৃক বাংলাদেশ, সাঁতারের জন্য একটি সম্ভাবনাময় দেশ। বিভিন্ন আন্তজার্তিক সাঁতার প্রকিযোগীতায় অংশগহনের মাধ্যমে দেশের ভাবমুর্তি উন্নয়ন করায় আমাদের উদ্দেশ্য। তিনি বলেন, এই কর্মসূচী মোতাবেক প্রতিটি জেলা থেকে সম্ভাবনাময় সাঁতারুদের নির্বাচন করছি। তাদের ঢাকায় নিয়ে ভালোভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে আন্তজার্তিক মানের সাঁতারু করে গড়ে তোলা হবে।

3333এদিকে সাতার শেষে বিভিন্ন বয়সের ১১ জন সাঁতারু ইয়েসকার্ড সহ পুরস্কার এবং ১৩ জন ইয়েসকার্ড প্রদান করা হয়। তারা হলেন, রমজাান আলী, সুমাইয়া, সবুজ, আরিফা, রনি, সিউলী, মাসুদ রানা, আল আমিন, মুক্তা, রকিবুল ও সোহাগকে ইয়েস কার্ড সহ পুরস্কার প্রদান করা হয়। এছাড়াও স্বপন, সাজ্জাদ, মৌসুমী খাতুন, রশিদ, আল আমিন, রাজু, লিমা, মাহাফুজা খাতুন, সোহাগ, রনি, সঞ্জু, আশিক ও নাহারুলকে ইয়েস কার্ড দেওয়া হয়। সাতারু বছাছ শেষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মান্নাফ কবির পুরস্কার ও ইয়েসকার্ড তুলে দেন। এসময় জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব কেএম আতাউল হাকিম লাল মিয়া, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, নৌবাহিনীর লে: কমান্ডার এম নাঈমুল হক, (এস) বিএন, লে: কমান্ডার (এক্স), বিএন মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জিয়া উদ্দিন বিশ্বাস,ডিএফএ’র সহ-সভাপতি আনোয়ারুল হক শাহী প্রমুখ।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.