Templates by BIGtheme NET
Home / ইতিহাস ও ঐতিহ্য / পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো

পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো

2016-12-01_bss-48_449637ডেস্ক রিপোর্ট, ০১ ডিসেম্বরঃ

বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী মঙ্গল শোভাযাত্রাকে বিশ্বের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেস্কো। সংস্থাটির ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ শাখায় মঙ্গল শোভাযাত্রার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
বুধবার ইউনেস্কোর ওয়েবসাইটে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। ইথিওপিয়ার আদ্দিসআবাবায় সংস্থার ইন্টার-গভর্নমেন্টাল কমিটির ১১তম সেশনে এই স্বীকৃতি দেয়া হয়।
সেখানে মঙ্গল শোভাযাত্রা সম্পর্কে বলা হয়েছে, বাংলা বছরের প্রথম দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা এই শোভাযাত্রার আয়োজন করেন। এটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকে। প্রতিবছর ১৪ এপ্রিল এই শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।
বলা হয়, এর মাধ্যমে অপশক্তি দূরে থাকবে এবং উন্নত ভবিষ্যৎ পাওয়া যাবে। এই শোভাযাত্রা বাংলাদেশের মানুষের লোক-সংস্কৃতির ঐতিহ্যকে প্রকাশ করে। সেই সঙ্গে অপশক্তির বিরুদ্ধে তাদের লড়াই করার ক্ষমতা এবং সত্য ও ন্যায়ের পথে চলার সাহসকেও প্রকাশ করে।
ইউনেস্কোর ওয়েবসাইটে বলা হয়, মঙ্গল শোভাযাত্রা গণতন্ত্রের জন্য সংহতি, বিভিন্ন সম্প্রদায়, ধর্ম, লিঙ্গভেদে দেশের মানুষের ঐক্যও প্রকাশ করে।
১৯৮৯ সালে সামরিক শাসনে হতাশ ছাত্রসমাজ একটি উন্নত ভবিষ্যতের চিন্তায় বাংলাদেশের মানুষকে একস্থানে জমায়েত করতে চেয়েছিল। সেই থেকে শুরু হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা।বাসস

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.