Templates by BIGtheme NET
Home / আইন-আদালত / বাল্য বিয়ে বন্ধ করায় জন্ম সনদ জাল করে আবার বিয়ে দেয়ার চেষ্টা ।। বর ও কণের স্বজনরা গ্যাড়াকলে

বাল্য বিয়ে বন্ধ করায় জন্ম সনদ জাল করে আবার বিয়ে দেয়ার চেষ্টা ।। বর ও কণের স্বজনরা গ্যাড়াকলে

7মেহেরপুর নিউজ,০৯ ডিসেম্বর:
মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দেয়ার পর একই দিন ভুয়া জন্মনিবন্ধন সনদ জাল করে বিয়ে দিতে গিয়ে গ্যাড়াকলে পড়েছেন বর ও কণের স্বজনরা। এ ঘটনায় ছেলের বাবা বাসদ আলীকে ১ মাস জেল এবং কনের দাদা আখের আলীর নিকট থেকে এক হাজার টাকা জরিমানা করেছে মেহেরপুরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো: শাহীনুজ্জামান। পাশাপাশি আবারো বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় মেহেরপুর শহরের বাস্ট্যান্ডে কাজি অফিসে এ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শাহিনুজ্জামান।
জানা গেছে, গাংনী উপজেলার কাথুলী গ্রামের বাসাদ আলীর ছেলে আমজাদ আলী পাশ্ববর্তি গাড়াবাড়িয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে শুকতারা খাতুন (১৬) এর সাথে বিয়ের দিন ধার্য হয়। খবর পেয়ে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল আমিন বিবাহ বন্ধ করে দেন। এদিকে দুপুরের দিকে বাড়িতে বিয়ে দিত না পেরে বর ও কণে পক্ষের লোকজন মেহেরপুর শহরের বাসস্ট্যান্ড কাজি অফিসে আসলে কাজী অফিসের সহকারী রুস্তম আলী মেয়ের জন্মনিবন্ধন সনদ দেখে সন্দেহ করে সহকারী কমিশনার ভুমিকে খবর দেয়। ম্যাজিষ্ট্রেট শানিুজ্জামান খবর পেয়ে কাথুলী ইউনিয়ন পরিষদে জন্মসনদ যাচাই করেন। এতে জন্মনিবন্ধন ভুয়া প্রমানিত হলে ছেলের পিতা ও কনের দাদাকে জেল ও জরিমানা করা হয়। মেহেরপুর সদর থানার এস আই মেজবাহ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.