Templates by BIGtheme NET
Home / বিনোদন / ভালোলাগা থেকেই ভালবাসার সৃষ্টি……

ভালোলাগা থেকেই ভালবাসার সৃষ্টি……

imagesইয়াদুল মোমিন:
ভালোলাগা যদিও ভালবাসা নয়,তবুও ভাললাগা থেকে ভালোবাসা সৃষ্টি হয়। ভালোবাসা থেকে ভালোলাগা নয়। বছর ঘুরে ১৪ ফেব্রুয়ারি দিনটি আসে আমাদের ভালোবাসাকে রাঙিয়ে দিতে। ভালোবাসা শুধু ১৪ ফেব্রুয়ারিতে থেমে থাকে না।কারো কারে কাছে ভালাবাসা দিবস তার নিজের নির্ধারন করা। তবে কেউ কেউ বলে ভালোবাসা নাকি গতি নির্ধারন করে থােকে।
আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস বা সেন্ট ভ্যালেন্টাইন’স ডে (Valentine’s Day) সংক্ষেপে ভ্যালেন্টাইন’স ডে নাম পরিচিত । একটি বার্ষিক উৎসবের দিন যা ১৪ই ফেব্রুয়ারি প্রেম এবং অনুরাগের মধ্যে উদযাপিত করা হয়। এই দিনে মানুষ তার ভালোবাসার মানুষকে ফুল, চিঠি, কার্ড, গহনা প্রভৃতি উপহার প্রদান করে দিনটি উদযাপন করে থাকে।
DSC03088ইতিহাস থেকে জানা যায়,

২৬৯ সালে ইতালির রোম নগরীতে সেন্ট ভ্যালেইটাইন’স নামে একজন খৃষ্টান পাদ্রী ও চিকিৎসক ছিলেন। ধর্ম প্রচার-অভিযোগে তৎকালীন রোমান সম্রাট দ্বিতীয় ক্লাডিয়াস তাঁকে বন্দী করেন। কারণ তখন রোমান সাম্রাজ্যে খৃষ্টান ধর্ম প্রচার নিষিদ্ধ ছিল। বন্দী অবস্থায় তিনি জনৈক কারারক্ষীর দৃষ্টহীন মেয়েকে চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ করে তোলেন। সেখারনে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনের জনপ্রিয়তা বেড়ে যায়। এতে সেন্ট ভ্যালেইটাইনের জনপ্রিয়তার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। সেই দিন ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছিল। অতঃপর ৪৯৬ সালে পোপ সেন্ট জেলাসিউও ১ম জুলিয়াস ভ্যালেইটাইন’স স্মরণে ১৪ই ফেব্রুয়ারিকে ভ্যালেন্টাইন’ দিবস ঘোষণা করেন।

যদিও ১৭৭৬ সালে ফ্রান্স সরকার কর্তৃক ভ্যালেইটাইন উৎসব নিষিদ্ধ হয়। ইংল্যান্ডে ক্ষমতাসীন উৎসব পিউরিটানরাও একসময় প্রশাসনিকভাবে এ দিবস উদযাপন করা থেকে বিরত থাকার জন্যে নিষিদ্ধ ঘোষনা করে। এছাড়া অস্ট্রিয়া, হাঙ্গেরি ও জার্মানিতে বিভিন্ন সময়ে এ দিবস প্রত্যাখ্যাত হয়।

images 1বর্তমানকালে, পাশ্চাত্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ উৎসব মহাসমারোহে উদযাপন করা হযচ্ছে। যুক্তরাজ্যে মোট জনসংখ্যার অর্ধেক প্রায় ১০০ কোটি পাউন্ড ব্যয় করে এই ভালোবাসা দিবসের জন্য কার্ড, ফুল, চকোলেট, অন্যান্য উপহারসামগ্রী ও শুভেচ্ছা কার্ড ক্রয় করতে, এবং আনুমানিক প্রায় ২.৫ কোটি শুভেচ্ছা কার্ড আদান-প্রদান করা হয়।

আমাদের দেশে দিনটির শুরু যেভাবে:

১৯৯৩ সালের দিকে আমাদের দেশে ভালোবাসা দিবসের আবির্ভাব ঘটে। সাংবাদিক ব্যক্তিত্ব ও যায়যায়দিনের সাবেক সম্পাদক শফিক রেহমান পড়াশোনা করেছেন লন্ডনে। পাশ্চাত্যের রীতিনীতিতে তিনি অভ্যস্ত। দেশে ফিরে তিনিই ভালোবাসা দিবসের শুরুটি করেন। এ নিয়ে অনেক ধরনের মতবিরোধ থাকলেও শেষ পর্যন্ত শফিক রেহমানের চিন্তাটি নতুন প্রজন্মকে বেশি আকর্ষণ করে। সে থেকে এই আমাদের দেশে দিনটির শুরু

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.