Templates by BIGtheme NET
Home / রাজনীতি / মেহেপুরে সদর উপজেলা নির্বাচন।। ভোটের সকল প্রস্তুতি সমপন্ন।। ভোট গ্রহণের উপকরণ পৌছিয়েছে কেন্দ্রে কেন্দ্রে

মেহেপুরে সদর উপজেলা নির্বাচন।। ভোটের সকল প্রস্তুতি সমপন্ন।। ভোট গ্রহণের উপকরণ পৌছিয়েছে কেন্দ্রে কেন্দ্রে

Untitledজুলফিকার আলী কানন:
১৯ ফেব্রুয়ারি উপজেলা নির্বাচনের প্রথম দফায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মেহেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচন। নির্বাচনের আর মাত্র কয়েক ঘন্টা বাকী রয়েছে। নির্বাচনকে ঘীরে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে সময় পার করছে ভোটার, সমথর্ক কর্মী ও প্রার্থীরা।
বিগত সংসদ নির্বাচনে সারা দেশের ন্যায় মেহেরপুরেও ১৯ দলীয় জোট নির্বাচন বর্জন করাই সে নির্বাচন ছিল নিরুত্তাপ। এবার উপজেলা নির্বাচনে উভয় জোট প্রার্থী ঘোষণা করাই এবার ভোটের আমেজে যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা। মেহেরপুর জেলায় আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের সাথে শরীক দল শুধু মাত্র জাতীয় পার্টি (এরশাদ) ও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৯ দলীয় জোটের শরীক জামায়াত ইসলামী রয়েছে।
১৪ দলীয় মহাজোটের সমর্থনে চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম রসুল ( আনারস),। এছাড়া ভাইসচেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব বিশ্বাস (টিউবওয়েল) এবং মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন, সামিরা বাসিরা পলি (হাস)। এদিকে ১৯ দলীয় জোটের সমর্থনে চেয়ারম্যান প্রার্থী, জেলা বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মারুফ আহমেদ বিজন (কাপ পিরিচ) , ভাইসচেয়ারম্যান পদে জামায়াতের পৌর আমীর মাহবুব উল আলম (চশমা) এবং মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান পদে জেলা মহিলা বিএনপির সভাপতি রোমানা আহমেদ (কলস) প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। এছাড়া বিএনপির বিদ্রোহী ভাইসচেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন জেলা যুবদলের আহবায়ক ফয়েজ মহাম্মদ (তালা ) প্রতিকে।
সদর উপজেলায় ১ টি পৌরসভা ও ৫ ইউনিয়নে ৭০ টি কেন্দ্রে মোট ভোটর সংখ্যা ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫৫০ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮৮ হাজার ৯৩৭ ও মহিলা ভোটার সংখ্যা ৮৯ হাজার ৬১৩ জন। ইতোমধ্যে সকল ভোট কেন্দ্রে ব্যালট বাকসসহ ভোট গ্রহণের সকল উপকরণ প্রিজাইডিং অফিসারের মাধ্যমে পৌছেছে।
নির্বাচনী মাঠে ক্ষমতাশীন আওয়ামীলীগ নিবির্গ্নে তাদের প্রচার প্রচারনা চালাতে পারলেও ১৯ দলীয় জোটের নেতা কর্মীদের মাঝে গ্রেফতার আতংক নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ১৯ দলীয় জোটের স্থানীয় নেতা সাবেক এমপি মাসুদ অরুন।
সাবেক এমপি মাসুদ অরুন জানান, উপজেলার সকল স্থানে ১৯ দলীয় জোটের স্থানীয় ভোটরদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে ক্ষমতাশীন দলের লোকজন। কোন মামলা না থকলেও ভোট থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে এবং বিএনপি জামায়াত ভোটারদের মধ্যে আতংক সৃষ্টি রতে পুলিশ মঙ্গলবার রাতভর অভিযান চালিয়ে ১৯ দলীয় জোটের ৮ নেতাকর্মীকে আটক করে মিথ্যা মামলায় চালান দিয়েছে। এব্যাপারে জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগও দেওয়া হয়েছে বলে জানান মাসুদ অরুন।
তবে বিএনপি নেতা মাসুদ অরুনের অভিযোগ মিথ্যা অখ্যায়িত করে আওয়ামীলীগ সমর্থীত প্রার্থী গোলাম রসুল জানান, আমরা পুলিশ প্রশাসনকে অনুরোধ করেছি ভোটের সময় যেন কোন রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীদের হয়রানি বা গ্রেফতার না করেন তারা। সকল দলের লোকজন যাতে কোন প্রকার ভয়ভীতি ছাড়াই ভোট কেন্দ্রে এসে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন এটাও নিশ্চিত করা হয়েছে। এছাড়া আমাদের দলের লোকজন ১৯ দলীয় জোটের কোন লোকজনকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেনা। গোলাম রসুল আরো বলেন, অতীতের যে কোন নির্বাচনের চেয়ে এবার উপজেলা নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে। সাধারণ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে উপযুক্ত প্রতিনিধি নির্বাচন করবে বলেও তিনি আশা করেছেন।
জেলা রির্টানিং অফিসার ও অতিরিক্তজেলা ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর হোসেন জানান, অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে সকল প্রকার ব্যবস্থা ইতোমধ্যে সমপন্ন করা হয়েছে। ভোট কেন্দ্রগুলোতে পুলিশ ও আনসার সদস্য ছাড়াও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে সেনাবাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful