Templates by BIGtheme NET
Home / বর্তমান পরিপ্রেক্ষিত / মেহেরপুরের খোকসা গ্রাম থেকে এজাজ আহমেদ নামের এক হোটেল ব্যবসায়ীকে বাড়ি থেকে অস্ত্রের মুখে উঠিয়ে নিয়ে গেছে চরমপন্থীরা

মেহেরপুরের খোকসা গ্রাম থেকে এজাজ আহমেদ নামের এক হোটেল ব্যবসায়ীকে বাড়ি থেকে অস্ত্রের মুখে উঠিয়ে নিয়ে গেছে চরমপন্থীরা

নিউজ ডেস্ক
চাঁদার দাবী না মেটানোয় মেহেরপুর সদর উপজেলার খোকসা গ্রাম থেকে এজাজ আহমেদ নামের এক হোটেল ব্যবসায়ী কে গভীর রাতে নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রের মুখে উঠিয়ে নিয়ে গেছে মুখোশধারী একদল চরমপন্থী। উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় বাঁধা দেওয়ায় চরমপন্থীরা ক্ষিপ্ত হয়ে বেধড়ক পিটিয়েছে অপহৃতের মা এরশাদা খাতুন(৬০) কে। বর্তমানে তিনি স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এদিকে অপহরনের দীর্ঘ সময় পার হলেও এখনও তার ভাগ্যে কি ঘটেছে জানা যায়নি। তবে অপহৃতের পরিবারের ধারণা, তাকে হত্যা শেষে লাশ গুম করতে পারে চরমপন্থীরা। এ ব্যাপারে মেহেরপুর সদর থানায় একটি সাধারন ডায়েরী হয়েছে।
মেহেরপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ রবিউল ইসলাম বলেন,খোকসা গ্রামের এজাজ আহমেদ নামের এক ব্যক্তিকে চরমপন্থীরা উঠিয়ে নিয়ে গেছে। তাকে এখন পর্যত্ম উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, চাঁদার টাকা না দেওয়ায় এবং জমিজমা সংক্রাত্ম বিরোধের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে অপহরন করে থাকতে পারে চরমপন্থীরা।
পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,আজ ২২ মার্চ দিবাগত গভীর রাতে ১০/১২ জনের মুখোশধারী সশস্ত্র চরমপন্থী দল মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি ইউনিয়নের খোকসা শেখ পাড়ার শহিদুলের ছেলে হোটেল ব্যবসায়ী এজাজ আহমেদের বাড়িতে হানা দেয়। চরমপন্থীরা বাড়িতে ঢুকে পরিবারের সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এজাজ আহমেদ কে উঠিয়ে নিয়ে যায়। পরিবারের লোকজন রাতভর খোজাখুজির পরও এখন পর্যত্ম তার কোন সনদ্ধান পায়নি।
অন্য একটি সূত্র বলছে,অপহৃত এজাজ আহমেদের সাথে জমিজমা ভাগাভাগি বিষয় নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিবাদ চলছিলো। সামপ্রতিক সময়ে কয়েকদফা মারামারিও হয়েছে এসব বিষয়াদি ঘিরে। অনেকে ধারণা করছে,এ কারনে তাকে পরিকল্পিতভাবেও প্রতিপক্ষের লোকজনেরা অপহরন করে থাকতে পারে।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.