Templates by BIGtheme NET
Home / ইতিহাস ও ঐতিহ্য / মেহেরপুরের মুজিবনগরে শেষ হলো খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীদের ১২৪ তম ধন্য বুধবার মহাসভা

মেহেরপুরের মুজিবনগরে শেষ হলো খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীদের ১২৪ তম ধন্য বুধবার মহাসভা

মেহেরপুর নিউজ, ১৩ ফেব্রুয়ারি :

আজ নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে শেষ হলো  দুই দিন ব্যাপি খ্রিষ্টান ধর্মের ১২৪ তম ধন্য বুধবার মহাসভা । মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুজিবনগর উপজেলার রতনপুর গ্রামের সাধু পিতরের গির্জায় ১২৪ টি মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে শুরু হয় খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীদের ১২৪ তম ধন্য বুধবার মহাসভা। প্রার্থনার মাধ্যমে পবিত্র আত্মার অন্বেষনের মধ্য ১২৪ তম ধন্য বুধবার মহাসভার আনুষ্ঠানিকতা চলে।

বুধবার সন্ধ্যায় পাপ মোচনের লক্ষে ক্ষমা প্রার্থনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে এই সভা । মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার রতনপুর গ্রামে রাত থেকেই প্রার্থনাই মশগুল খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীরা। এই মহাসভা শুরু হয়েছিলো ১২৪ বছর পূর্বে। তৎকালীন ভারতের নদীয়া জেলার মালিয়াতোপোতাবাসীদের মাধ্যমে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে  খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীরা এ বিশেষ প্রার্থনায় যোগ দেয়।  রাত থেকে চলে ধর্মীয় আলোচনা, কীর্তনগান, প্রার্থণা, আশর্বচন, অনূতাপের উপাসনা ও আধ্যাত্বিক গান।

খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীদের মতে তৎকালীন অখন্ডিত ভারতের নদীয়া জেলার পবিত্র আত্মার খোঁজে প্রার্থনা শুরু করেন মালিয়াতোপোতাবাসী। যার প্রধান ছিলেন রেভারেল চাল্টন। মেহেরপুরের এই রতনপুর গ্রাম থেকেই পায়ে হেটে সেখানে যান খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীরা। তাদের মতে প্রার্থনার মাধ্যমে পবিত্র আত্মার সন্ধান মেলে, মেলে পাপের ক্ষমা।

চার্চ অব বাংলাদেশের নব অভিষিক্ত বিশব রাইট হেমেন হালদার জানান, রাত থেকে পাপ মোচন ও পরিবারের কল্যান কামণায় প্রার্থনা করছেন খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীরা। এরই মাধ্যমে ইশ্বরের কৃপা লাভ করবে বলে ধারনা তাদের।

মহাসভা আয়োজক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শংকর মন্ডল জানান, বিভিন্ন জেলা থেকে কয়েক হাজার খ্রীষ্টীয় ধর্মাবলম্বীরা প্রার্থনায় অংশ নেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.