Templates by BIGtheme NET
Home / বর্তমান পরিপ্রেক্ষিত / মেহেরপুরে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খেয়ে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী অসুস্থ

মেহেরপুরে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খেয়ে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী অসুস্থ

মেহেরপুর নিউজ,০২ এপ্রিল:
মেহেরপুরের গাংনীতে কৃমি নাশক ট্যাবলেট খেয়ে অর্ধশত শিক্ষার্থী অসুস্থ’ হয়ে পড়ে। তাদের মধ্যে ৪২ জনকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অসুস্থদের মধ্যে অধিকাংশই ছাত্রী।
গতকাল রবিবার সকালে গাংনী উপজেলার গাড়াডোব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পরপরই প্রধান শিক্ষক সংরক্ষিত হিসেবে বিদ্যালয় একদিনের ছুটি ঘোষনা করেন।
হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার মধ্যে অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হলো- ৬ষ্ঠ শ্রেনীর সানজিদা খাতুন, খুশি আক্তার, শাহাজাদি খাতুন, ৭ম শ্রেনীর রিমা খাতুন, প্রতাশা খাতুন, সুমনা আক্তার, আফরোজা আক্তার, ৮ম শ্রেনীর হালিমা খাতুন, শামিমা আক্তার মৌ, মিম আক্তার, ৯ম শ্রেনীর মাহুমুদা আক্তার সহ অর্ধশত শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পরে।
গাড়াডোব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান জানান, কৃমি নাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর উদ্দ্যেশে গত শনিবার বিদ্যালয়ে নোটিশ দিয়ে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে খেয়ে আসতে বলা হয় এবং বিদ্যালয় কার্যক্রম মর্নিং শিফট করা হয়। সকাল ৮ টার দিকে স্বাস্থ্য বিভাগের একজন স্বাস্থ্য কর্মীর উপস্থিতিতে কৃমি নাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয় । শিক্ষাথীদের ২ ঘন্টা রুমের মধ্যে বিশ্রামে থাকতে বলা হয়। হঠাৎ সকাল ১০ টার দিকে কয়েকজন শিক্ষার্থী মাথা ঘোড়াসহ বমি করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এসময় সিভিল সার্জন অফিসে খবর দিলে ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অলোক কুমার দাসের নেতৃত্বে একটি চিকিৎসক দল বিদ্যালয় গিয়ে অসুস্থ শিক্ষার্থীদের পর্যবেক্ষন করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। এর কিছুক্ষন পর আরো শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পরলে তাদেরও জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।
প্রধান শিক্ষক জানান, শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হওয়ার পরপরই বিদ্যালয় একদিনের ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, কুষ্টিয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শ্ক্ষিার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা স্বাস্থ্য বিভাগকে জানানো হলেও তারা বলেন মেহেরপুওে কোনও সমস্যা হবে না আপনি শিক্ষার্থীদের কৃমি নাশক ট্যাবলেট খাওয়ান।
এদিকে, অসুস্থ শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে ভর্তি হলে তাদেও চিকিৎসা সেবায় স্বেচ্ছাসেবকের ভুমিকা পালন করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বারিকুল ইসলাম লিজনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের একটি দল এতে অংশ নেয়।
খবর পেয়ে জেলা যুবলীগের আহবায়ক মাহফুজুর রহমান রিটন দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে হাসপাতাল পরিদর্শন করে অসুস্থ শিক্ষার্থীদের খোজ খবর নেন।
স্টুডেন্ট ক্যাবিনেটের সদস্যা ও দশম শ্রেনীর ছাত্র আনারুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়ের প্রায় ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী মাথা ঘুরে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাদের মেহেরপুর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।
দশম শ্রেণীর ছাত্রী রিমা খাতুন জানায়, আমি ট্যাবলেট না খেয়ে স্যারদের বলেছিলাম খেয়েছি তাই অসুস্থ হয়নি। আমার বন্ধুবান্ধীরা যারা খেয়েছে তাদের বেশির ভাগই অসুস্থ হয়ে পড়েছে।
মেহেরপুরের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অলোক কুমার দাস বলেন, ৪২জনকে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। কৃমিনাশক ঔষধ খাওয়ার পরে এ ঘটনা ঘটলেও মূলত এটি গণহিষ্টরিয়ার রোগে শিক্ষার্থী আক্রান্ত হয়েছে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই। এই রোগে মেয়েরা আক্রান্ত হয় বেশি। ঘন্টা দুয়েকের মধ্যেই তারা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারবে।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.