Templates by BIGtheme NET
Home / আইন-আদালত / মেহেরপুরে জনযুদ্ধ আঞ্চলিক কমান্ডার দাউদ আলীর ১০ বছর কারাদন্ড

মেহেরপুরে জনযুদ্ধ আঞ্চলিক কমান্ডার দাউদ আলীর ১০ বছর কারাদন্ড

মেহেরপুর নিউজ, ০২ আগষ্ট :
অবৈধ্য অস্ত্র রাখার দায়ে জনযুদ্ধ (লাল পতাকা) গাংনী অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার দাউদ আলীকে ১০ বছর সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকালে মেহেরপুর স্পেশাল ট্রাইবুন্যাল ৪র্থ আদালতের বিচারক মোঃ তাজুল ইসলাম এই রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত দাউদ আলী গাংনী উপজেলার তেরাইল গ্রামের কাজিম উদ্দীনের ছেলে। তবে দাউদ আলী পলাতক রয়েছে। একই মামলায় অপর আসামী মিলনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। মামলার বিবরণে জানাগেছে ২০১২ সালের ৮ ফেব্রæয়ারি র‌্যাব-৬ গাংনীর ডিএডি জসিম উদ্দীনের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গাংনী উপজেলা তেরাইল মধ্যপাড়া গ্রামের কাজিম উদ্দীনের ছেলে চরমপন্থী জনযুদ্ধ (লাল পতাকা) আঞ্চলিক কমান্ডার দাউদ আলীকে আটক করে। এ সময় তার অপর সঙ্গী মিলন পালিয়ে যায়। র‌্যাব সদস্যরা দাউদের কাছ থেকে ১টি এলজি সাটারগান উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ১৯৭৮ সালের আমর্স এ্যাক্ট এর ১৯-এ (এফ) ধারায় গাংনী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ৪। তারিখ ৮ ফেব্রæয়ারী ২০১২। জিআর কেস নং-৯৩/২০১২। এসটিসি নং-৭৪/১২। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার প্রাথমিক তদন্ত শেষ করে আদালতে চার্যশীট দাখিল করেন। মামলায় মোট ৯জন সাক্ষ প্রাদন করেন। এসে দাউদ আলী দোষী প্রমানিত হওয়ায় আদালত তাকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেন। যেহেতু দাউদ হোসেন পলাতক রয়েছে, সে আটকের দিন থেকে তার সাজা শুরু হবে। মামলার অপর আসামী মিলনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় আদালত তাকে বেকুসুর খালাস প্রদান করেন। মামলায় রাষ্ট্র পক্ষে এপিপি মীনা পাল এবং আসামী পক্ষে একেএম শফিকুল আলম কৌশুলী ছিলেন।
মেহেরপুরে জনযুদ্ধ আঞ্চলিক কমান্ডার দাউদ আলীর ১০ বছর কারাদন্ড

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.