Templates by BIGtheme NET
Home / বর্তমান পরিপ্রেক্ষিত / মেহেরপুরে ড. আবুল বারাকাত :: মুক্তিযোদ্ধারা সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেননি

মেহেরপুরে ড. আবুল বারাকাত :: মুক্তিযোদ্ধারা সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেননি

মেহেরপুর নিউজ,২৫ ডিসেম্বর:
আমরা মূলত দুটি উদ্দ্যেশে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলাম । তার একটি হলো বৈষম্যহীন অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ রাষ্ট্র আর দ্বিতীয়টি হলো অসাম্প্রদায়িক চেতনা সমৃদ্ধ বাংলাদেশের। মুক্তিযোদ্ধারা সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য  যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেননি।

রবিবার দুপুরে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জেলা ওয়ার্কাস পার্টির আয়োজনে মুক্তিযুদ্ধের ৪৫ বছর পূর্তিতে ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ কোন পথে…’ শীর্ষক আলোচনা সভা এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসকল কথা বলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. আবুল বারাকাত।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ কোন পথে.. শীর্ষক আলোচনার উদ্ধৃতি টেনে ড.আবুল বারাকাত আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭মার্চের ভাষনে তিনি বলেছিলেন ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম’ । তিনি প্রথমে স্বাধীনতার সংগ্রাম না বলে মুক্তির সংগ্রাম বলেছিলেন। আমরা স্বাধীন হয়েছি। স্বাধীনতা পেয়েছি, পতাকা পেয়েছি কিন্তু মুক্তি কি পেয়েছি? ।

তিনি আরো বলেন, আমাদের রাষ্ট্র ব্যবস্থায় এক শতাংশ মানুষ ধণী, ৬৬ শতাংশ মানুষ দরিদ্র, ৩৩ শতাংশ মানুষ মানুষ মধ্যবিত্ত। এই ৩৩ শতাংশ মধ্যবিত্তের আবার তিনটি ভাগ রয়েছে। এর মধ্যে ১৮ শতাংশ মানুষ নিম্ম মধ্যবিত্ত। অর্থাৎ ৬৭ শাতাংশ আর ১৮ শতাংশ মিলে ৮৫ শতাংশ মানুষ আজ দরিদ্র। যে দেশের ৮৫ শতাংশ মানুষ দরিদ্র সে দেশের মানুষকি মুক্তি পেয়েছে ? পাইনি। আমরা এ জন্য যুদ্ধ করিনি।

মেহেরপুর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারন সম্পাদক কমরেড আব্দুল মাবুদের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিট বুর‌্যর সদস্য কমরেড নুর আহমেদ বকুল, গাংনী পৌর মেয়র আশরাফুল ইসলাম।

আলোচনা সভা শেষে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তেরাইল গ্রামের মরহুম আব্দুল আজিজ কে (মরনোত্তর), চাঁদপুর গ্রামের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম রহমান ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক হিসাব উদ্দীন কে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. অধ্যাপক আবুল বারাকাত। পরে অধ্যাপক ড. আবুল বারাকাতের হাতে শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন গাংনী পৌর মেয়র আশরাফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে ওয়ার্কাস পাটির বিভিন্ন এলাকার নেতাকর্মীসহ এলাকার বিশিষ্ট জনরা অংশগ্রহণ করেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.