Templates by BIGtheme NET
Home / জাতীয় ও আন্তর্জাতিক / মেহেরপুরে ৩০ লক্ষ শহীদ স্মরণে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন

মেহেরপুরে ৩০ লক্ষ শহীদ স্মরণে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন

মেহেরপুর নিউজ, ১৮ জুলাই:
৩০ লক্ষ শহীদের স্মরণে বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত সারাদেশে একযোগে ৩০ লক্ষ গাছের চারা রোপনের অংশ হিসাবে মেহেরপুর জেলা প্রশাসন ও সামাজিক বন বিভাগের উদ্যোগে মেহেরপুর জেলা পর্যায়ে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।
বুধবার সকালে মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে সদর উপজেলার গোভীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। এর আগে গোভীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়মাী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ গোলাম রসুল, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. আখতারুজ্জামান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী আজিম উদ্দীন সর্দার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার বিনয় কুমার চাকী, পিরোজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, বুড়িপোতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহা জামাল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন বলেন সাবেক জোট সরকারের ক্ষমতায় আসতে ব্যার্থ হয়ে তারা গাছ নিয়ে অরাজকতা সৃষ্টি করেছিল আপনাদের নিশ্চিয় মনে আছে। বর্তমান সরকার যখন গাছ লাগানোর কাজে ব্যস্ত তারা ক্ষমতায় আসতে গাছ কেটে রাস্তায় ব্যরিকেড সৃষ্টি করে। তিনি বলেন ২০১৪ সালে বিএনপি, জামায়াত কিভাবে গাছ কেটেছিল তার হিসাব সকলের জানা। সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন আমরা যে ফল খাচ্ছি সে ফলগাছ কিন্তু আমরা রোপন কি? আমাদের পূর্ব পুরুষগন ফলের গাছ লাগিয়েছিল বলেই আজ আমরা ফল খাচ্ছি পুষ্টি পাচ্ছি। এখন আমরা যদি গাছ না লাগায় তবে আমার আপনার সন্তানরা আগামীতে কি খাবে? এই ভেবে অন্তত পক্ষে প্রত্যেকের গাছ লাগানো উচিত। পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান বলেন আমি মেহেরপুরের মানুষ না হওয়া সত্বেও আমি এই জেলায় প্রতিটি সড়কে গাছ লাগাচ্ছি, কাদের জন্য? আপনাদের সন্তানদের জন্য। আজকে যে গাছ রোপন করা হচ্ছে তা এদেশের লাখো শহীদদের স্মৃতির উদ্যোশে। এই গাছ গুলোর যাতে সঠিকভাবে পরিচর্যা করা হয় তার জন্য আপনারা সকলেই সচেষ্ঠ থাকবেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ গোলাম রসুল বলেন আমরা কিভাবে দেশ স্বাধীন করেছিলাম তা বর্তমান প্রজন্মকে জানতে হবে। সে সময়ের সূর্য্য সেনারা দেশ স্বাধীন করেছিল বলে আজকে আমি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হয়েছি। আজকে আমরা ডিসি হচ্ছি, এমপি হচ্ছি। তিনি বলেন গাছ লাগানোর পর অবশ্যই তার প্রতি যত্ন নিতে হবে। পরে গোভীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বেশ কিছু বনজ ও ফলদ গাছের চারা বিতরণ করা হয়। এর আগে মহান মুক্তিযোদ্ধা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে মোনাজাত করা হয়।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.