Templates by BIGtheme NET
Home / নির্বাচন / মেহেরপুর পৌর নির্বাচন :: ৩ নম্বর সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীর দুজনেরই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

মেহেরপুর পৌর নির্বাচন :: ৩ নম্বর সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীর দুজনেরই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

মেহেরপুর নিউজ,২০ এপ্রিল:
আগামী ২৫ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে মেহেরপুর পৌরসভা নির্বাচন। নির্বাচনকে সামনে রেখে সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীরা নির্বাচনী বাস্ত সময় পার করছেন। প্রতীক পাওয়ার পর কাক ডাকা ভোর থেকে শুরু করে গভির রাত পর্যন্ত নিজ নির্বাচনী এলাকা চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। এনিয়ে মেহেরপুর নিউজে ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরা হয়েছে প্রতিটি ওয়ার্ডের সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলদের ভোট যুুদ্ধের খবর। আমার প্রধান প্রতিবেদক মিজানুর রহমানের ওয়ার্ড ভিত্তিক শেষ প্রতিবেদন আজ। আজ থাকছে পৌরসভার ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ৩ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ড।
আগামীকাল থেকে মেয়র প্রার্থীদের নিয়ে নানারকমের বিশ্লেষনধর্মী প্রতিবেদন প্রকাশিত হবে। মেহেরপুর নিউজের সাথে থাকার জন্য আপনাদের আহবান জানানো হচ্ছে। আসুন আজ জেনে নিই ৩ নম্বর সংরক্ষিত কাউন্সিলরদের ভোট যুদ্ধে খবর।
মেহেরপুর পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের শহরের কাঁসারীপাড়া, মল্লিকপাড়া, শহীদ আরজ সড়ক উত্তর, হোটেল বাজার পাড়ার একাংশ, মহিলা কলেজ সড়ক, দিঘিরপাড়া, প্রান্তিক সিনেমা হল পাড়া, ফৌজদারীপাড়ার দক্ষিণ অংশ, নজরুল সড়কের উত্তর অংশ, শহীদ হামিদ সড়ক, সিভিল সার্জন অফিস পাড়া, সরকারী কলেজপাড়ার একাংশ, শহীদ হামিদ সড়ক, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের হোটেল বাজার পাড়ার পূর্বদিক, বাসস্টান্ড, শহীদ আরজ সড়কের দক্ষিণ দিক, নজরুল স্কুল সড়ক, মার্কাস মসজিদ পাড়া, সরকারী কলেজপাড়ার একাংশ, গরুর হাটপাড়া, স্টেডিয়াম, পাড়া, ভ’মি অফিস পাড়া ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের স্টেডিয়াম পাড়া দক্ষিন, ডাকঘর পাড়া, পুরাতন মাঠপাড়া, গোরস্থান পাড়া, শিশুতরা পাড়া, কোর্ট পাড়া, অফিসার্স কোয়াটার, বামন পাড়ার ১০ হাজার ৩শ ৪১ ভোটার নিয়ে পৌরসভার সংরক্ষিত ৩ নম্বর ওয়ার্ডের গঠন।
এ ওয়ার্ডে সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ২ জন প্রার্থী। তারা হলেন, রোকসানা কামাল রুনু (অটো রিকসা) এবং অপর প্রার্থী হামিদা বেগম (আনারস)।
রোকসানা কামাল রুনু:

শহরের মল্লিকপাড়ার শহর যুবলীগের সভাপতি শেখ কামালের স্ত্রী রোকসানা কামাল রুনু ২ সন্তানের জননী। এবার তিনি অটো রিকসা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। তিনি বর্তমানে শহর যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত নির্বাচনে প্রথমবার অংশ নিয়ে সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। তবে তিনি নির্বাচনের মাঠ ছাড়েননি। তখন থেকেই মাঠ গোছতে কাজ করছেন। তাই এলাকার ভোটারদের সাথে গড়ে তুলেছেন সু-সম্পর্ক। নকল নবীশ অফিসে কাজ করা রুনু তার সুন্দর ব্যবহার দিয়ে খুব সহজেই মানুষের মনে স্থান করে নিয়েছেন। এবারের নির্বাচনে তিনি জয়ের ব্যপারে আশাবাদি। তিনি বলেন, নির্বাচনে জয়ী হলে এলাকার মহিলাদের মধ্যে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা প্রদান। বাল্য বিবাহ বন্ধসহ ঝরে পড়া শিশুদেও নিয়ে কাজ করবেন। বিএ পাশ করা রোকসানা কামাল সকলের দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন।
হামিদা বেগম:

শহরের স্টেডিয়াম পাড়ার মরহুম শ্রমিক নেতা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর নুরুল ইসলামের স্ত্রী হামিদা বেগম ২টি কন্যা সন্তানের জননী। এবারের নির্বাচনে তিনি প্রথম বারের মত আনরস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। গত নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ কররেও তা বাতিল হয়ে যায়। তিনি নিজে একজন গৃহিনী হিসেবে বাড়ি কাজ করেন। নিজে শিক্ষিত না হলেও দুইটি কন্যা কে শিক্ষিত করে গড়ে তোলার পাশাপাশি ওয়ার্ডের সকল মানুষের সাথে ভালো ব্যবহারের মাধ্যমে মন জয় করার চেষ্টা করেন। এবারের নির্বাচনে তিনি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদি। তিনি সকলের দোয়া ও সমর্থন কামনা করেছেন।

Facebook Comments
Social Media Sharing
by webs bd .net
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.